কবিগানের নানান অঙ্গ কবিয়াল গণেশ ভট্টাচার্য

কবিগানের নানান অঙ্গ ও গায়কীর বৈচিত্র্যময় সঙ্গীত ধারা

কবিগানের নানান অঙ্গ ও গায়কী বৈচিত্র্যময় সঙ্গীত ধারা রয়েছে।কবিগান বাংলা লোকসাহিত্যের এক অমূল্য সম্পদ৷ আনুমানিক সপ্তদশ শতাব্দী হতে বর্তমান কাল পর্যন্ত বাংলা সংস্কতির এই বলিষ্ঠ সজীব ধারা নানা পরিবর্তন ও বিবর্তনের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয়ে বাংলা সাহিত্য ও সংস্কতিকে সমদ্ধ করে চলেছে৷ বঙ্গের শ্রেষ্ঠ লোকগান কবিগান তার নিজস্ব গায়কীধারা ও আঙ্গিকতায় সম্পূর্ণরূপে স্বতন্ত্র৷ লিখছেন–কবিয়াল গণেশ ভট্টাচার্য।

ঝুমুর ও তরজা কবিগানের আসরে

তরজা ও ঝুমুর সঙ্গীত বাংলার কবিগানে বৈচিত্র্যের স্বাদ আনে

তরজা ও ঝুমুর গান কবিগানে বৈচিত্র্যের স্বাদ আনলেও লোকসঙ্গীত হিসাবে স্বতন্ত্র। কবিগানের সঙ্গে সাদৃশ্য ও বৈসাদৃশ্যের নিরিখে লিখেছেন কবিয়াল গণেশ ভট্টাচার্য।

লোকসঙ্গীত কবিগানের বৈচিত্র্যপূর্ণ ধারা

কবিগান সম্বন্ধে সমালোচনা করতে হলে সর্বোপরি প্রাদেশিকতা ও জাতিতত্ত্ব বিসর্জন দিতে হবে৷ কিন্তু দুঃখের বিষয়, বিভিন্ন গবেষকগণের রচনায় অঞ্চলভিত্তিক আত্মশ্লাঘা ও অপর ধারার দোষারোপ প্রকৃত কবিগান প্রেমীদের বিশেষভাবে ব্যথিত করে৷ কবিগানের সার্বিক উন্নয়নের জন্য প্রয়োজন সকলের নিরাসক্ত দৃষ্টি৷ মননের যুক্তিতে কবিগানকে দেখতে হবে বাংলা সাহিত্যের এক রত্নমণ্ডিত প্রত্নভাণ্ডার হিসাবে৷