বাংলার পটচিত্রে-ব্রতকথা

পট শব্দটি নানাভাবে ব‍্যাখায়িত হয়েছে।সাধারণত পট শব্দটির গঠনগত অর্থ হল-পটি+অ(অচ্)―ণ―বস্ত্র।পট অতীতে কাপড়ের উপর আঁকা হত।চিত্র সমন্বিত বস্ত্রখণ্ডকেই পট বলা হয়।কাপড়ের উপর যারা ছবি আঁকতেন তাদের বলা হত-পট্টিদার।পট্টিদার>পট্টিকার>পটকার>পটুয়া এভাবে শব্দটি এসেছে।এরা সমাজে পেটো, পোটো,চিত্রকর ও পাইটকা নামে পরিচিত ছিলেন।গবেষক বিনয় ভট্টাচার্যের মতে পট অতীতকাল থেকেই ছিল,তার পরিচিতিও ছিল বিশ্বব‍্যাপী।তিনি দেখিয়েছেন বাইবেলের ওল্ডটেস্টামেন্টের গল্প নিয়ে আঁকা হত পট,তিনি এমনই সন্ধান দিয়েছেন।পটের উল্লেখ পাওয়া যায় সপ্তম শতাব্দীর প্রথমপাদে বানভট্টের হর্ষচরিতে…লিখছেন–দীপঙ্কর পাড়ুই